ঢাকা বুধবার, ৭ই ডিসেম্বর ২০২২, ২৩শে অগ্রহায়ণ ১৪২৯

সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির ফল-২০২২ সেশনের অভ্যর্থনা ও নবীনবরণ

নবীনবরণের নাটক ও বিতর্কে ফুটে উঠল বিশ্ববিদ্যালয়ের মাহাত্ম্য


প্রকাশিত:
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৭:০৮

আপডেট:
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৭:০৯

সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির (এসইউ) ফল-২০২২ সেশনে ভর্তি হওয়া সকল বিভাগের নতুন শিক্ষার্থীদের অভ্যর্থনা ও নবীনবরণ উপলক্ষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বিকাল তিনটায় ঢাকার ফার্মগেটের কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশের (কেআইবি) মিলনায়তনে আয়োজনটি অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের এই দ্বিতীয় পর্বের পুরোটা সময় শিক্ষার্থীদের সাথে থেকে উৎসাহ যুগিয়েছেন সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির প্রতিষ্ঠাতা ইঞ্জিনিয়ার আব্দুল আজিজ, প্রো ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর শামীম আরা হাসান, রেজিস্ট্রার এস. এম. নূরুল হুদা ও অন্যান্য শিক্ষক, কর্মকর্তাবৃন্দ।

অনুষ্ঠানে ‘আলোকশিখা’ নাটিকা মঞ্চস্থ করণের পর ‘গতিশীল অর্থনৈতিক উন্নয়নের মূল নিয়ামক উদ্যোক্তা হওয়ার মানসিকতা’ শীর্ষক বিতর্ক অনুষ্ঠানের আয়োজনও করা হয়েছিল।

অনুষ্ঠানে নাটকের একটি দৃশ্য। ছবি- অধিকার

তাজবীর সজীবের নির্দেশনায় আলোকশিখা নাটিকার শিল্প নির্দেশনা করেন মো. সাঈদ মাহাদী সেকেন্দার। অভিনয়ে ছিলেন- শর্মিলা সিকদার (প্রভাষক, ব্যবসা প্রশাসন বিভাগ), সকাল, আয়েশা, দিপু, শমরিতা, শুচি, অর্থী, তাছলিমা, সুমাইয়া, আরমান, শিমু, সুমি, হোসাইন, ফয়সাল এবং তাজবীর সজীব।

শব্দ ব্যবস্থাপনায় ছিলেন- মাহফুজ, সানি। আলোক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন- আলম, রাশেদ। আর নাটিকার অন্যান্য কলাকুশলীদের মধ্যে ছিলেন- সাকিব, মতিউর, আমিনুল, সনজয়।

এরপর ‘গতিশীল অর্থনৈতিক উন্নয়নের মূল নিয়ামক উদ্যোক্তা হওয়ার মানসিকতা’ শীর্ষক বিতর্ক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। যেখানে পক্ষদলে ছিলেন- সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থী রিফাত হোসেন, মেহরাব হোসেন, নাদিয়া শামীম সুমহা। আর বিরোধী দলে ছিলেন- ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের শিক্ষার্থী আয়েশা সিদ্দিকা, নুসরাত জাহান, শামীম আহমেদ।

বিতর্ক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ছবি : অধিকার

এছাড়া বিচারকমণ্ডলীতে ছিলেন- সিএসই বিভাগীয় প্রধান বুলবুল আহমেদ, আইন বিভাগের প্রধান দিদারুল ইসলাম ভূঁইয়া, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রভাষক শর্মিলা শিকদার। আর মডারেটর হিসেবে ছিলেন- ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মীর মেহেদী হাসান টিটু।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন- সোনারগাঁও ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান মো. মাসুদ রানা।

নাটিকা ও বিতর্ক পর্বের অনুষ্ঠান উপস্থাপনার দায়িত্বে ছিলেন বাংলা বিভাগের প্রভাষক তাসলিমা বেগম এবং কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের শিক্ষিকা সায়মা আক্তার।

নাটিকা ও বিতর্ক অনুষ্ঠানকে সফলভাবে সম্পন্ন করতে সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন সাংস্কৃতিক উপকমিটির সভাপতি কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. এম এ মাবুদ।



বিষয়:


আপনার মূল্যবান মতামত দিন:


এই বিভাগের জনপ্রিয় খবর
Top